বিয়ে নয় লিভ টুগেদার ই শ্রেয় ।

বিয়ে বাংলাদেশে সাধারনত বিয়ে বা বিবাহ নামে ই সবাই চেনে তবে অঞ্চলভেদে বিয়ে বা বিবাহের আরো অনেক নাম থাকটে পরে যে ধরুন সিলেট অঞ্চলে মানুষ এই বিয়ে বা বিবাহ কে কটাক্ষ করে বলে ” হাঙ্গা ” । অবশ্য এই ” হাঙ্গা ” বলার পিছনে মূল কারণ হলো বিয়েটা কারো জীবনকে যদি বিষিয়ে তোলে তখন ই সেটা বিয়ে থেকে ” হাঙ্গা ” তে পরিনত হয় । সকল ধার্মীকদের মতে বিয়ে টা নাকি একজন পুরুষ ও নারীর পবিত্র বন্ধন ? আর এই বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার জন্য ঘটা করে আয়োজন করা হয় বিয়ের ।আমারা সবাই জানি বিয়ে কেন করানো হয় ! সাধারনত একজন পুরুষ ও মহিলার যৌন কর্ম সম্পাদন করার ও একত্রে এক ই গৃহে বসবাসের জন্য ই তাদের কে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে হয় । তার মানে একজন পুরুষ ও মহিলার যৌন কর্ম করার জন্য বিবাহ নামক খাচায় বন্দি হতে হয় । এবার আমি আমাদের দেশের ও সংস্কৃতির বিয়ের কথা ই বলছি যা কি না খুবই আশ্চর্য জনক আমাদের দেশে প্রায় সকল বিয়ে গুলিই সম্পাদন হয় পারিবারিক ভাবে অর্থাৎ সেটেল মেরিজ । সেটেল মেরিজ টা এমন একটা আশ্চর্য বিষয় যে টেকনাফের চল্লিশ বছরের আলু মিয়া ( কাল্পনিক নাম ) তেতুলিয়ার বারো বছরের সেতারা বেগম ( কাল্পনিক নাম ) কাঅ সাথে কোন জানা চেনা ইহ জনমে কখনো ই হয়নি অথচ আলু মিয়ার সাথে সেতারা বেগমের বিয়ে পাকা বা কি মজা আলু মিয়ার শুধু সুখ আর সুখ । এর চেয়ে লজ্জার আর কি হতে পারে যে বারো বছরের সেতারা বেগমের জানা নেই চেনা নেই চল্লিশ বছরের আলু মিয়ার সাথে কি একটু ফরমালিটির পরেই ঘরে ধাক্কা দিয়ে ঠুকিয়ে দেওয়া হলো আর আলু মিয়া ও সেতারা বেগমের নিজের পাইয়া যা তা শুরু কইরা দিল । ছি এটা কি লজ্জা সেতারা বেগমের জন্য একজন অপরিচিত পুরুষ তাকে এমন টি করবে যা কখনোই কি কোন সুস্হ্য বিবেক সমর্থন করতে পারে ? যৌন সম্পর্ক ঠিক রাখা একই গৃহে বসবাস করার জন্য বিয়ে নামক নিয়ামক টা কি খুব ই গুরুত্ব পূর্ণ ? মোটেও না যৌন সম্পর্ক ঠিক রাখা একই গৃহে বসবাস করার জন্য সবচেয়ে বেশি যেটার দরকার তা হলো মনের মিল আত্মার সম্পর্ক ।আত্মার সম্পরকের ক্ষেত্রে বিয়ে নামন নেয়ামকের কোন ই গুরুত্ব নেই । এক জন পুরুষ অথবা নারী তার জীবন সংগী হিসেবে কাকে কি ভাবে গ্রহন করবে এটার নিতান্ত্যই তার ব্যক্তি গত ব্যাপার এখানে করো চাপিয়ে দেওয়া কোন পছন্দ বা আইন কখনোই শান্তি বা সুখ আনাতে পারেনা। তবে আমার কাছে বিবাহের সম্পর্কটা হলো বান্ধা গোয়ালের গরুর মত । বান্ধা গোয়ালের গরুকে যেমন যে ঘাস ই দেওয়া হউক না কেন তা খেতে বাধ্য ঠিক তেমনি বিয়ের সম্পর্ক টা । আজ পৃথিবীর উন্নত দেশ গুলেতে বিয়ে নামক বান্ধা গোয়ালের গরুর সম্পর্কটা প্রায় উঠে গেছে । অনেক জুটি ই শুধু আত্মার সম্পর্কের কারনে যুগের পর যুগ একই গৃহে একই বিছানায় পার করে দিচ্ছেন সুখে স্বচ্ছন্দে জীবন যাপন করছেন নিশ্চিন্তে । অথচ বিয়ের দড়িতে আটকা পরে কত জীবন ই না অকালে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে । সূখী ও সুন্দর জীবনের জন্য বিয়েটা কখনোই মূখ্য বিষয় নয় বিয়ে না করে ও মধুর আত্মার সম্পর্কের কারনে যুগের পর যুগ একই ঘরে এক ই বিছানায় পার করে দেওয়া যায় । তাই বলবো বিয়ে নয় লিভ টুগেদার ই শ্রেয় ।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s